ফেসবুক-টুইটারের পর এবার নিষেধাজ্ঞা মুখে ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেল

YouTube bans Donald Trump's account from uploading videos for one week
Image Source: Google

আউটলাইন বাংলা ডিজিটাল ডেস্কঃ ফেসবুক-টুইটারের পর এবার ইউটিউবের (YouTube) নিষেধাজ্ঞার মুখে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (President Donald Trump)। আগামী দিনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump) কোনো উস্কানিমূলক মন্তব্যের জেরে তাঁর ভক্তরা যাতে কোনোরকম ভাবে হিংসা ছড়াতে না পারে, সে-কারনেই এই পদক্ষেপ। গুগল পরিচালিত ইউটিউব এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ট্রাম্প চ্যানেলের প্রাইভেসি পলিসি মেনে না চলায় কারনে আগামী ৭ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে ইউটিউব (YouTube) চ্যানেল। এবং চ্যানেল বন্ধ করার পাশাপাশি ওই চ্যানেলের কোনো কোনো কন্টেন্টে কমেন্টের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি কড়া হয়েছে।

বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (President Donald Trump) ইউটিউব (YouTube) চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা প্রায় ২৮ লাখের কাছাকাছি। ইউটিউব কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, আগামী সাত দিন ট্রাম্প (Trump) তাঁর চ্যানেলে নতুন কোনও ভিডিয়ো আপলোড করতে পারবেন না। এবং ট্রাম্পের আপলোড করা শেষ ভিডিওটিও সরিয়ে দেওয়া হয়। এই কারনে ফের একবার অস্বস্তিতে পড়ল ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বুধবার মার্কিন প্রশাসনে নতুন প্রেসিডেন্ট হিসাবে জো বাইডেনের নাম চূড়ান্ত হওয়ার পরই, ট্রাম্প-পন্থীরা ওয়াশিংটন ক্যাপিটল বিল্ডিঙয়ে ভয়াবহ হামলা চালিয়েছিল, এই ঘটনার পরই ট্রাম্পের উস্কানিমূলক মন্তব্যের অভিযোগে তাঁর অ্যাকাউন্ট সাময়িক ভাবে বন্ধ করে দিয়েছিল টুইটার। সাথে সাথে জানানো হয়েছিল, ভবিষ্যতে তিনি যদি কোনো উস্কানিমূলক কিছু পোস্ট করে তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরপরই গত বৃহস্পতিবার অ্যাকাউন্টটি রি-ওপেন করে দেয় টুইটার। কিন্তু শেষরক্ষা হোলো না পাকাপাকি ভাবে বন্ধ হল টুইটার অ্যাকাউন্ট। যার জেরে ক্ষুব্ধ বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের (Donald Trump)।