Homeঅফবিটবাড়িতে মাঝে মধ্যেই ঢুকে পড়ছে বাদুড়, দেখুন কি ইঙ্গিত দিচ্ছে প্রাচীন সংস্কার

বাড়িতে মাঝে মধ্যেই ঢুকে পড়ছে বাদুড়, দেখুন কি ইঙ্গিত দিচ্ছে প্রাচীন সংস্কার

আউটলাইন বাংলা ডেস্কঃ এই স্তন্যপায়ী প্রাণীটিকে নিয়ে মানুষের অস্বস্তি কোন নতুন বিষয় নয়। উল্টো হয়ে ঝুলে থাকা এই প্রাণীটিকে নিয়ে মানুষের কৌতুহল প্রবল। বাদুড় নিয়ে গবেষণার অন্ত নেই বহুদেশে, বাদুড় নিয়ে গবেষণা হচ্ছে তার মধ্যে চীন অন্যতম এখানে বাদুড়ের জন্য একটি সংগ্রহশালা গড়ে উঠেছে। যেখানে বাদুড় নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। রাত্রিবেলা বাদুড় উড়ে যাওয়ার দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ভ্যাম্পায়ার এবং ড্রাকুলার মত কিংবদন্তি চরিত্র তৈরি করেছে মানুষ।

তবে এই বাদুড় বা চামচিকে নিয়ে বিভিন্ন রকম সংস্কৃতিতে রয়েছে বিভিন্ন রকম সংস্কার সেগুলি কিছু উল্লেখ করা হল এখানে-

১। আমাদের ভারতীয় সংস্কৃতিতে বিয়ে বা কোন কাজের সময় বাদুড় বা চামচিকের ঘোরাফেরা অশুভ বলে মনে করেন অনেকে।
২। ইউরোপে মনে করা হয় বাড়িতে বাদুড় বা চামচিকে ঢুকলে পরিবারের কারো মৃত্যু আসন্ন। বহু জায়গায় বাদুড় বা চামচিকে কে অশুভ আত্মার সঙ্গে তুলনা করা হয়।
৩। বহু জায়গায় আবার বাদুড়ের উড়ান কে খারাপ আবহাওয়ার সঙ্গে তুলনা করা হয়। দিনের বেলা বাদর দেখাও অশুভ।
৪। তা বলে এসব কথা শুনে যদি ভাবছেন বাদুড় মেরে ফেলবেন তাহলে জেনে রাখা ভালো বাদুড় হত্যা মহাপাপ। এদের হত্যাকারীর আয়ু কমে আসে বলে মনে করা হয় প্রাচীন সংস্কৃতিতে।

এই ধরনের বহু কথা প্রচলিত এবং বর্ণিত আছেপ্রাছিন বহু সংস্কৃতিতে। তবে বলাই বাহুল্য এসব কিছু কুসংস্কার মাত্র। এর পেছনে বৈজ্ঞানিক কোন যুক্তি বা কোন ভিত্তি নেই এবং তা খুঁজতে যাওয়ার কোন মানে হয় না। তবে বাদুড়ের শরীরে অনেক ভাইরাস এবং ব্যাক্টেরিয়া থাকে, ফলে মানুষের শরীরে অনেক রগ ছড়িয়ে পরার সম্ভবনা থাকে।

এই মুহূর্তে