করোনা কালে বাড়িতে রাখুন তুলসী, অ্যালোভেরা, কেন এমন পরামর্শ দিচ্ছে বিশেষজ্ঞরা?

tulsi and aloe vera tree will increase oxygen in to the house naturally
(Photo: Google)

আউটলাইন বাংলা ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা পরিস্থিতিতে সারাদেশে অক্সিজেনের (Oxygen) সংকট দেখা দিয়েছে। অক্সিজেনের (Oxygen) অভাবে অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন। এমনকি এই অক্সিজেন (Oxygen) আতঙ্কের জন্য প্রয়োজন ছাড়াও অনেকে বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনে রাখছেন। অক্সিজেনের এই সমস্যা দূর করার জন্য পরিবেশবিদরা বেশি করে গাছ লাগানোর কথা বলছেন। এমনকি বাড়িতেও কিছু কাজ লাগানোর কথা বলছেন যেগুলো অক্সিজেন (Oxygen) সরবরাহ করে।

মানুষ নিজেদের সুবিধার জন্য নির্বিচারে গাছপালা কেটে দেয়। বাড়ি, ফ্ল্যাট করার জন্য জলাশয় বুজিয়ে দেয়। চারিদিকে তাকালে সিমেন্টের বড় বড় বিল্ডিং এর মাঝে সবুজকে খুঁজে পাওয়া যায় না। যার ফলে শহর জুড়ে বাড়ছে দূষণ। প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের অভাব পড়ছে। এমন অবস্থায় পরিবেশবিদরা বাড়িতে কিছু কাজ লাগানোর পরামর্শ দিচ্ছেন যা বাতাসে অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়াবে এবং তার সাথে বাড়ির বাতাসকে পরিশুদ্ধ করবে। এর জন্য তুলসী (Tulsi), অ্যালোভেরার (Aloe Vera) গুরুত্ব অপরিসীম। একদিকে তুলসী তো সর্দি-কাশির জন্য উপকারী। অন্যদিকে বাতাস দূষণমুক্ত রাখতে সাহায্য করে। এমনকি কার্বন ডাই অক্সাইড, কার্বন মনো অক্সাইড এর মত বিষাক্ত গ্যাস শোষণ করে। অ্যালোভেরা ক্ষতিকারক জিনিস শোষণ করে নেয় অ্যালোভেরা গাছও বাতাসের ক্ষতিকারক জিনিস শোষণ করে নেয়। অ্যালোভেরা গাছ ৯টি এয়ার পিউরিফায়ারের কাজ করে।

শুধু ঘরের বাইরে নয়, ঘরের মধ্যে যেমন ডাইনিং রুম,বেডরুমে কিছু গাছ রাখলে তা ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির সাথে সাথে বাতাসের টক্সিন শোষণ করে নেয়। স্নেক প্ল্যান্ট বাতাসে ট্রাইক্লোরোথাইলিন, ফরমালডিহাইড শোষণ করে থাকে। এমনকি স্টাইরিন গ্যাসোলিন জাতীয় টক্সিনও শুষে নিতে পারে। গাছ লাগানো নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক কৃষ্ণেন্দু আচার্য বলেছেন, “করোনা একদিন চলে যাবে। কিন্তু অক্সিজেন সংকট দিনে দিনে বাড়বে। জনসংখ্যা বাড়ছে। গাছের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। যেভাবে সবুজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এতে একদিন দোকান থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনে নিঃশ্বাস নিতে হবে। তাই বৃক্ষরোপণের সঙ্গে এখন থেকে ইন্ডোর প্ল্যান্টেশনে জোর দেওয়া দরকার।”