Homeরাজ্যচাঁদার জুলুম রামপুরহাটে, প্রতিবাদে পথ অবরোধে লরি চালকরা

চাঁদার জুলুম রামপুরহাটে, প্রতিবাদে পথ অবরোধে লরি চালকরা

নিজস্ব সংবাদদাতা রিনটু পাঁজাঃ আগামী ১৬ই ফেব্রুয়ারি বিদ্যাদেবীর আরাধনা অর্থাৎ সরস্বতী পুজো। এই সরস্বতী পুজোর চাঁদার জুলুমে পথ অবরোধ করলো পাথর বোঝাই লরির ড্রাইভাররা। ঘটনাটি বীরভূম জেলার অন্তর্গত রামপুরহাটের হস্তিকাঁদা গ্রামে। অভিযোগ, লরির ড্রাইভাররা খাদান, ক্রাসার থেকে পাথর বোঝাই করে দিনে দুই বার করে ওই গ্রামের রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করেন প্রতিটা টিপে চাঁদা আদায় করছে ছেলেরা। ছোট বড় মিলে চাঁদা আদায় করছে, শুধু এক জায়গায় না বহু জায়গায় দিতে হচ্ছে চাঁদা।

একাধিক লরির ড্রাইভাররা জানিয়েছে, চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে লরির ড্রাইভার খালাসী দের মার খেতে হচ্ছে, অভব্য ভাষায় কথাবার্তা বলছে। একই গাড়িতে একাধিকবার চাঁদা দিয়ে রেহায় পাচ্ছেন না ড্রাইভাররা, অতিষ্ট হয়ে পড়েছে তারা। রবিবার ভোরে একটি গাড়িতে চাঁদা দেওয়া কে কেন্দ্র করে হাতাহাতি হাওয়ার পর রবিবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত পথ অবরোধ করেন লরির ড্রাইভাররা।

এই ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রামপুরহাট থানার পুলিশ। পুলিশ গিয়ে পথ অবরোধ তুলে দেয় এবং সমস্ত গাড়ির ড্রাইভারদের আশ্বাস দেন আর এই রকম অত্যাচার হবে না। এর জন্য উপযুক্ত ব্যাবস্থা নেবে প্রশাসন। এক লরির ড্রাইভার সুদীপ দাস বৈরাগ্য বলেন “পাথর বোঝাই করে সালবাদ্রা থেকে আসছিলাম তা এই গ্রামে ১০ জায়গায় চাঁদা তুলে, সকালে যাবার সময় খালি গাড়ি তে একবার আবার গাড়িতে মাল বোঝাই করে আসার সময় আবার চাঁদা, ডবল ডবল চাঁদা নিচ্ছে। ভোর রাত্রি থেকে চাঁদা নিচ্ছে, আমাদের চাঁদা দেওয়া আছে বলে গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলাম তাও আমাদের গেট খুলে নামিয়ে মারতে আসছে। আজ কে মেরেছে। তবে পুলিশ এসেছিল বললো দেখছি যাতে এই রকম অত্যাচার না হয়।“

এই মুহূর্তে