আমাদের রোজগার কিছু অভ্যাসে বাড়তে পারে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা

these Habits Increase Cancer Risk
আমাদের রোজগার কিছু অভ্যাসে বাড়তে পারে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা (Photo: Google)

আউটলাইন বাংলা ডিজিটাল ডেস্কঃ বর্তমানে ক্যান্সার ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তাই এই রোগ নিয়ে দুশ্চিন্তাও সবার কম নয়। প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার সহজে ধরা পড়ে না এবং পরে তা ধরা পড়লেও আর চিকিৎসা সম্ভব হয় না। তবে সবক্ষেত্রে ক্যান্সার মানেই বাঁচানো সম্ভব না তা নয়। শরীরের সব অঙ্গেই ক্যান্সার হতে পারে। তবে প্রতিটি ক্যান্সারের লক্ষণ আলাদা। সারাবিশ্বে ক্যান্সার নিয়ে প্রচুর গবেষণা চলছে। ক্যান্সার হওয়ার একাধিক কারণ আছে। তবে আমাদের কিছু অভ্যাস ক্যান্সারের জন্য দায়ী। যেমন- ধূমপান করা, মদ্যপান করা ইত্যাদি। চলুন দেখে নেওয়া যাক আমাদের কোন কোন অভ্যাস ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ায়।

ধূমপান-
প্রতি ১৫ জন পুরুষের মধ্যে একজনের ফুসফুসে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এর প্রধান কারণ ধূমপান। প্রতিদিন যারা দুই থেকে তিন প্যাকেট সিগারেট সেবন করে, প্রায় কুড়ি থেকে ত্রিশ বছর ধরে এদের মধ্যে ৯০ ভাগ লোকের ফুসফুসে ক্যান্সার হয়।

অ্যালকোহল পান করা-
অতিরিক্ত অ্যালকোহল শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। এইভাবে অ্যালকোহল পান করলে খাদ্যনালী ক্যান্সার,কোলন ক্যান্সার, মলদ্বারে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এয়ার ফ্রেশনারের ব্যবহার-
ঘরে সুন্দর গন্ধের জন্য অনেকেই এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু এর মধ্যে থাকা ক্ষতিকারক পদার্থ আমাদের নাক দিয়ে শরীরের ভেতর প্রবেশ করে, যা ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

প্যাকেটজাত দ্রব্য-
প্যাকেটজাত খাবার, ভেজাল খাবার গ্রহণ করার প্রবণতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এই খাবারগুলি দীর্ঘমেয়াদে ক্যান্সারের কারণ হয়ে ওঠে। তাই প্যাকেটজাত খাবার থেকে দূরে থাকা উচিত।

পোড়া খাবার-
চিকেন ফ্রাই হয়তো আমাদের সবার প্রিয় খাবার। কিন্তু এতে ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে। খাবারটি পোড়ালে এক ধরনের কেমিক্যাল রিঅ্যাকশন ঘটে। ফলে যে রাসায়নিক পদার্থ উৎপন্ন হয় তা শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। এর ফলে শুধু ক্যান্সার নয়, হৃদরোগে আক্রান্ত হতে পারে।

ডিজেল ও পেট্রোলের ব্যবহার-
ডিজেল ও পেট্রোলে থাকা কার্বন মনোক্সাইড এবং হাইড্রোকার্বন ফুসফুসের ক্যান্সার এবং অন্যান্য শ্বাসকষ্ট জনিত রোগ হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায়।