Homeজীবন শৈলীThird person in relationship: সম্পর্কের মাঝে তৃতীয় ব্যক্তি ? জেনে নিন এই...

Third person in relationship: সম্পর্কের মাঝে তৃতীয় ব্যক্তি ? জেনে নিন এই লক্ষণগুলো!

আউটলাইন বাংলা: একসাথে এতদিন থাকার পরেও সঙ্গীর কাছ থেকে কোনও স্নেহ, ভালবাসা কিছুই পাচ্ছেন না(Third person in relationship)? রিলেশনশিপ এক্সপার্ট রা অনেকবার ব্যাখ্যা করেছেন, রিলেশনশিপে কীভাবে একজন আরেকজনের সঙ্গে ইমোশনালি চিটিং করে।
প্রথমে জেনে নিন ইমোশনালি চিটিং কাকে বলে। ইমোশনাল অ্যাফেয়ার হল, যখন কোনও ব্যক্তি তার সম্পর্কের বাইরে গিয়ে অন্য কারুর প্রতি আবেগ, আকর্ষণ অনুভব করেন এবং তাকে বেশি সময় দেন, আর সেই নতুন ব্যক্তির কাছ থেকে সে ইমোশনাল সাপোর্ট এবং বিশেষ অনুভূতি বোধ করেন। আপনি যদি সন্দেহ করছেন যে আপনার সঙ্গীও এরকম কোনও আবেগময় সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে (Third person in relationship), তাহলে মিলিয়ে দেখুন নিচের লক্ষণগুলি।

সম্পর্কে ঝামেলা:

আপনি আপনার সঙ্গীকে কিছু বললেই সে রেগে যাচ্ছে। আপনার কথায় আগের মতো মনোযোগ দিচ্ছে না বা কেয়ার করছে না। দিনের বেশিরভাগ সময়ই আপনাদের মধ্যে ঝামেলা হচ্ছে। আপনার সঙ্গী আপনার সামনে নীরব থাকছে।

তৃতীয় ব্যক্তি আপনার চেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছেঃ

যখনই সেই “বিশেষ” বন্ধুটি আপনার সঙ্গীকে ফোন, মেসেজ করে বা কোনও সাহায্য চায়, তখনই সঙ্গে সঙ্গে আপনার পার্টনার তাতে সাড়া দেয়। এছাড়াও, আপনার সঙ্গী সেই তৃতীয় ব্যক্তিটির সঙ্গে অনেক বেশি সময় কাটাচ্ছে। তারা একে অপরকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে।

আপনার কাছ থেকে কিছু লুকোনো(Third person in relationship):

আপনি আপনার সঙ্গীকে তৃতীয় ব্যক্তির সম্পর্কে কিছু জিজ্ঞাসা করলে হয় সে নীরব থাকে, আর নাহলে আপনার কাছ থেকে কিছু লুকোতে শুরু করে। আপনার সঙ্গী হয়তো সেই সম্পর্কটা চালিয়ে নিয়ে যেতে চান, যার ফলে আপনাদের সম্পর্ক আরও গুরুতর সমস্যায় পড়তে পারে।

সম্পর্কে অবনতি হচ্ছে (Third person in relationship):

যদি মনে হয় যে, আপনাদের সম্পর্ক অত্যন্ত খারাপ দিকে যাচ্ছে এবং আপনার সঙ্গী আর আগের মতো আপনার সঙ্গে ব্যবহার করছে না এবং যদি আপনার পরিবর্তে তাদের সমস্ত সময়, আবেগ সেই “বিশেষ” বন্ধুর প্রতি দেখা যায়, তবে জেনে রাখুন আপনাদের সম্পর্কটি খুব শীঘ্রই শেষ হতে চলেছে

এই সব লক্ষন গুলি দেখতে পেলে সাবধান হন। সম্পর্কের প্রতি আপনাকে আরও যত্নশীল হতে হবে। আরও বেশি সময় দিতে হবে। ছোটখাটো কোনো সমস্যা থাকলে যথাসম্ভব কথা বলে মিটিয়ে নিতে হবে।

এই মুহূর্তে