Homeব্লগThe ultimate photography: দেখতে হবে চোখ দিয়েই, ক্যামেরা শুধুমাত্র একটি যন্ত্র

The ultimate photography: দেখতে হবে চোখ দিয়েই, ক্যামেরা শুধুমাত্র একটি যন্ত্র

‘ভালো ক্যামেরা দিয়ে ঝকঝকে সুন্দর ছবি তোলা যায়, সেটা ক্যামেরার কোয়ালিটি। তবে সে ছবি আদর্শ বা ভালো ছবি নাও হতে পারে। সব লেখা যেমন সঠিকভাবে মনের ভাব প্রকাশ করতে সক্ষম হয় না, তার মধ্যে ভুল ত্রুটি থাকে একটি ছবিও ঠিক তাই’

— এম. শুভম —

‘A picture is worth a thousand words’ এই কথাটি অক্ষরে অক্ষরে সত্যি। যিনি বলেছিলেন তিনি নিশ্চয়ই এই কথার সত্যতা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল ছিলেন। যে কোনো ছবির মধ্যেই থাকে কিছু গল্প, কিছু কথা তবে ছবির ভাষা কিছুটা অন্যরকম। সেটাকে বুঝতে হয় অন্যরকম ভাবেই। কিন্তু ওই যে, যেকোনো জিনিস সহজ-সরল করে বুঝতে চাওয়া আমাদের  অভ্যেস। কোন একটা ভালো লেখা দেখলে আমরা বলি সুন্দর লেখা, একদম ছবির মত। আবার ভালো ছবি আমাদের কাছে লেখার মতোই পরিষ্কার। সে ক্ষেত্রে একটি ছবি যদি হয় গল্প তবে ক্যাপশন হল সেই গল্পের হেডলাইন। ফটোগ্রাফিকে এর থেকে সহজে হয়তো আর বোঝা যাবে না। তবে ছবির ভাষা অনেকটাই আলাদা এবং অনেক বেশি শক্তিশালী।

যেমন ধরুন সাহিত্যে আপনি পড়লেন, “ওই নিচে গাছ তলায় যেখানে নানা রঙের ছ্যাঁতলা পড়া পাথরটার নিচে দিয়ে একটু খানি জল ঝির ঝির করে বয়ে যাচ্ছে।“ এবার আপনি গোটা বিষয়টা ইম্যাজিন করলেন। চোখ বন্ধ করতেই আপনার মনে একটা ছবি ভেসে উঠলো। একটা ফ্রেমের মধ্যে একটা গাছ, পাথর, ঝিরঝির করে জল যাচ্ছে। আপনার বেশ সুন্দর একটা অনুভুতি হল। তবে ছবি কিন্তু ছবি আপনাকে আরেক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে।

এখানে ইমাজিনেশন এর কোনো ব্যাপার নেই। চোখের সামনে আপনি ছবি দেখতে পাচ্ছেন। হয়তো আপনি সাঁতার কাটতে জানেন না, কিন্তু নীল জলরাশি দেখে আপনার মনে হতেই পারে এখনই ঝাপিয়ে পড়ি। টাটকা তাজা আপেল দেখে মনে হবে একটা কামড় বসিয়ে দিই, কিংবা দুঃখ-দুর্দশারগ্রস্ত করুন কাহিনী দেখে মুহূর্তের জন্য আপনার চোখ ছল ছল করে উঠবে। আসলে একটা ভালো ছবির বৈশিষ্ট্য হল কোন না কোন ভাবে আপনার আবেগ অনুভূতি গুলোকে নাড়া দিয়ে যাওয়া। এর বৈজ্ঞানিক এবং মনস্তাত্ত্বিক বিশেষ একটি কারণ রয়েছে, মন (Mind) অত শব্দের মারপ্যাঁচ বোঝেনা। সে সবসময় ছবি দিয়ে ভাবতে চায়, ছবি দেখতে চায় এবং যে কোনো বিষয়ে ছবি দিয়েই বুঝতে চায়। যাকে বলে পিকচার অফ মাইন্ড (Picture of Mind)। যার জন্য ছবি অনেক বেশি শক্তিশালী মাধ্যম।

খুব কম সময়ের মধ্যেই ক্যামেরা অনেক বেশী আধুনিক হয়ে উঠেছে।

বর্তমান ক্যামেরায় রয়েছে বিভিন্ন ধরনের এডভান্স ফিচার। এসেছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স( AI)  ফলে এখন ছবি তোলার জন্য খুব বেশি দক্ষতার প্রয়োজন হয়না। ক্যামেরা অ্যাঙ্গেল থেকে শুরু করে এক্সপোজার ট্রাইংগেল, আর কোনো কিছুরই ধার ধারেন না উঠতি ফটোগ্রাফাররা। তবে আমি মনে করি আপনার হাতের কাছে যতই আধুনিক বিকল্প থাকুক না কেন বেশিক কিছু জিনিস কিন্তু আপনাকে জেনে রাখতেই হবে এবং সেটা নিজের স্বার্থে। আমি বলছি না আপনি এখন ফিজিক্স বই খুলে বসুন।

একটা ক্যামেরা কিভাবে কাজ করে, কত রকম লেন্স রয়েছে এবং সেগুলি কোন পার্টিকুলার কাজে ব্যবহার হয়। ডেপ্ত, ফোকাস, রিফ্লেক্স, এক্সপোজার ট্রাইংগেল এগুলো আপনাকে জেনে রাখতে হবে। বলছি দুটো কারণে, এক হল আপনার নিজের জন্য। আর দুই হলো, অপরের জন্য। মানে আপনার আশেপাশের লোকজনের জন্য। একটু বুঝিয়ে বলছি, ধরুন আপনি দুটো ভালো ছবি তুললেন। সবাই বলল ভালো। এবার আপনার তৃতীয় এবং চতুর্থ ছবি দুটো খারাপ উঠলো কিন্তু আপনি তার কারণ পরিষ্কার বুঝতে পারছেন না, সেক্ষেত্রে আপনার আগের তোলা ছবি দুটো ‘বাই চান্স’ এর তকমা পেয়ে যাবে এবং তাতে আপনার কিছুই করার থাকবে না।

এ তো গেল টেকনিক্যাল দিকের কথা, থিওরি। এবার একটু অন্যদিকে আসা যাক।

Steve McCurry- Stilt Fisherme
Steve McCurry- Stilt Fisherme

আমেরিকার এক ভদ্রলোক এলেন শ্রীলঙ্কায়। কতদিন ধরে সেখানে মানুষ বাঁশের উপর উঠে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করত। এই বিষয় নিয়ে কেউ সেভাবে ভাবেইনি আগে। সেই ছবি তুলে তিনি হয়ে গেলেন বিশ্ববিখ্যাত। তিনি স্টিভ ম্যাকুরি (Steve McCurry)। তার তোলা ‘আফগান গার্ল’ আরও একটি অসাধারণ ছবি। কিংবা কেভিন কার্টারে’র (Kevin Carter) কথাই ধরা যাক। মাত্র একটি ছবি তাকে এনে দিয়েছিল পুলিৎজার পুরস্কার। যদিও ওই ছবিই তার আত্মহত্যার অন্যতম কারণ। অতদূর যদি যেতে না চান তাহলে যার কথা বলব তিনি রঘু রায় (Raghu Rai)। ভূপাল গ্যাস ইন্সিডেন্ট এর সময় তার তোলা ছবিগুলি দেখলে এখনো গায়ে কাঁটা দেয়। এমন কি আছে এই ছবিগুলির মধ্যে?

Starving Child and Vulture- Kevin Carter
Starving Child and Vulture- Kevin Carter

এখন ক্যামেরার দাম ধরাছোঁয়ার মধ্যে। যে কোন কেউ ক্যামেরা গলায় ঝুলিয়ে ফটোগ্রাফার হয়ে যেতে পারে। তাতে কারো কিছু বলার নেই, আমারো কোনো আপত্তি নেই। ভালো ক্যামেরা দিয়ে ঝকঝকে সুন্দর ছবি তোলা যায়। সেটা ক্যামেরার কোয়ালিটি। তবে সে ছবি আদর্শ বা ভালো ছবি নাও হতে পারে। সব লেখা যেমন সঠিকভাবে মনের ভাব প্রকাশ করতে সক্ষম হয় না। তার মধ্যে ভুল ত্রুটি থাকে। একটি ছবিও তাই। ছবির ভাষা বুঝতে হবে। আগে চোখ দিয়ে দেখতে হবে, পরে লেন্স দিয়ে। ক্যামেরা শুধুমাত্র একটি যন্ত্র, আদপে আপনি পৃথিবী কে যে ভাবে দেখেন আপনার ছবিতে তাই প্রতিফলিত হবে। ক্যামেরা আপনাকে একটি বিশেষ সুবিধা প্রদান করেছে, ‘নিজের চোখ দিয়ে আপনি যা দেখেন ক্যামেরা দিয়ে অন্যদের তা দেখাতে পারেন।‘ তাই কোনটা ছবি আর কোনটা ছবি নয় সেটা বোঝার জন্য কিছুটা সময় আপনাকে দিতেই হবে, আর অবশ্যই অনেক ছবি তুলতে হবে। আজ আবার বিশেষ দিন ইন্টারন্যাশনাল ফটোগ্রাফি ডে (International Photography Day)।  তুলুন ছবি তুলুন।

এই মুহূর্তে