Homeভাগ্যচক্রNoboborsho1429: ঐতিহ্য ও সম্প্রীতির পহেলা বৈশাখ, জানুন বাঙালির প্রানের উৎসবের মাহাত্ম্য

Noboborsho1429: ঐতিহ্য ও সম্প্রীতির পহেলা বৈশাখ, জানুন বাঙালির প্রানের উৎসবের মাহাত্ম্য

Outlinebangla Digital Desk: বাঙালিরা সবসময় উৎসব মুখর। কথাতেই আছে বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ। তাঁরই মধ্যে অন্যতম উৎসব হল বাংলা নববর্ষ (Noboborsho) উদযাপন। দেখতে দেখতে বছর শেষ হতে চলেছে, আর মাত্র কয়েক দিন পর পয়লা বৈশাখ (Bengali New Year 1429)। নববর্ষের প্রতি বাঙালির এক অন্য ধরনের আবেগ জড়িয়ে রয়েছে। রবীন্দ্রনাথ-নজরুল থেকে হালের কবি-সাহিত্যিকগণ বৈশাখ নিয়ে কবিতা-সাহিত্য রচনা করছেন। ধর্ম-সম্প্রদায় নির্বিশেষে সব মানুষের প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। এদিন সমগ্র বাঙালি রবীন্দ্রনাথের গানটি গেয়ে ওঠেন, ‘এসো হে বৈশাখ’। ‘প্রলয়োল্লাস’ কবিতায় নজরুল বলেছেন, ধ্বংস আর যুদ্ধ থেকেই নতুনের সৃষ্টি হয়! তেমনই বাংলা নববর্ষের কালবৈশাখী ঝড় বা রুদ্র রূপ থেকেই অনুপ্রেরণা পায় বাঙালি।

নববর্ষের তারিখ (Noboborsho Date)
বাংলার সৌর ক্যালেন্ডারের প্রথম মাস বৈশাখ। তাই বৈশাখ মাসের প্রথম দিনটিকে নববর্ষ (Noboborsho) বা পয়লা বৈশাখ (Baisakh) বলা হচ্ছে। হাতে গোনা আর মাত্র কয়েকটা দিন পরেই ১৪২৯-এ পা দেব আমরা। এবার গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী পয়লা বৈশাখ (Baisakh) পড়েছে আগামী ১৫ এপ্রিল অর্থাৎ শুক্রবার। বাংলা বছরের প্রথম উৎসব তাই সকাল থেকে পূজা অর্চনা শুরু হয় বাড়িতে বাড়িতে। এছাড়াও এ দিন বাঙালি ব্যবসায়ীরা নতুন আর্থিক বছরের সূচনা করেন লক্ষ্মী-গণেশের পুজো ও হালখাতার মধ্য দিয়ে।

আমাদের নানা ভাষাভাষির দেশে বিভিন্ন নামে ও আলাদা রীতিতে নববর্ষ উদযাপিত হয়। পশ্চিমবাংলায় পয়লা বৈশাখ, আসামে রঙ্গালি বিহু, উত্তর ও মধ্য ভারতে নতুন বছর বৈশাখী, কেরালায় বিশু, তামিলনাড়ুতে তামিল পুঠান্ডু এবং ওড়িশায় বিশুব সংক্রান্তি নামে পরিচিত। এদিন আপামর বাঙালিরা একে অপরকে শুভেচ্ছা জানান। সঙ্গে খাওয়া দাওয়া, আড্ডা, মিষ্টিমুখ, নতুন বস্ত্র পরিধান, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন বছরকে (Bengali New Year 1429) বরণ করে নেন আপামর বাঙালি।

এই মুহূর্তে