Homeরাজ্যনলহাটিতে ১৪নং জাতীয় সড়কে ব্রিজে ফাটল

নলহাটিতে ১৪নং জাতীয় সড়কে ব্রিজে ফাটল

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ বীরভূমঃ বীরভূম জেলাকে পশ্চিম বর্ধমান ও মুর্শিদাবাদের সঙ্গে সংযোগকারী পানাগড়-মোড়গ্রাম ১৪নং জাতীয় সড়কে নলহাটির জগধারী ব্রাহ্মনী নদীর উপর অবস্থিত ব্রিজে ফাটল দেখা দিয়েছে। তড়িঘড়ি ব্রিজের ফাটল মেরামতিতে নেমে পড়েছে কতৃপক্ষ,ব্রিজটির ক্ষত অংশ ভাঙার কাজ চলছে।

আগামী পরশুদিন ব্রিজের ক্ষতস্থানে (ফাটল) ঢালাই এর কাজ হবে বলে জানা যায়।জেলার অন্যতম ব্যস্ত এই ব্রিজ দীর্ঘদিন পূর্বে তৈরী হবার পর পর্যাপ্ত রক্ষনাবেক্ষনের অভাবের জন্য এই বিপত্তি বলে স্থানীয় একাংশের মত। গতকাল সন্ধার পর থেকে জাতীয় সড়কে ঐ ফাটলের স্থান ঘিড়ে রেখে ব্রিজের উপর ভারী যান চলাচল নিয়ন্ত্রন করা হয়েছে। বড়ো গাড়ি সহ লরিগুলিকে মাড়গ্রাম-শেরপুর রাস্তায় ঘুরিয়ে পাঠানো হচ্ছে। শুধুমাত্র ছোটো গাড়ি,বাইক,সহ যাত্রী শূন্য বাসচলাচল করছে বর্তমানে ঐ ব্রিজের উপর দিয়ে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন স্থানীয় বাসিন্দারা জানান যে জগধারীতে ব্রাহ্মনী নদীর উপর রেল ও সড়কপথের ব্রিজটি পাশাপাশি অবস্থিত। রেলের পক্ষ থেকে নতুন ব্রিজ তৈরী করা হলেও জাতীয় সড়কের ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরে ভগ্নপ্রায় অবস্থায় পড়ে আছে যারজন্য ব্রিজে দুর্ঘটনাও ঘটে চলেছে। এই ব্রিজটি ধারে পাশের গ্রাম চামটিবাগান,জগধারী,তেজহাটী সহ প্রায় ১৫টি গ্রামের ভরসা অন্যদিকে রামপুরহাট ও নলহাটি মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনকারী একমাত্র সড়কপথ।

প্রশাসনের উদাসীনতার অভিযোগও তুলেছেন একাংশ তাদের দাবি ব্যস্ত জাতীয় সড়কে শুধু এই ব্রিজটি নয় অনেক ব্রিজের হালই এক এছাড়াও রাস্তার হালও খুব খারাপ কোথাও পিচ উঠে গেছে কোথাও বা বড়গর্তের সৃষ্টি হয়েছে যা বর্ষার সময় জলজমে দূর্ঘটনা ঘটছে।এছাড়াও রাস্তার পাশে কোথাও কোথাও বালি পাথর ইঁট রাখার অভিযোগও তুলেছেন স্থানীয়রা ফলে প্রানের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করেন তারা।এই ব্রিজটি বিগত কয়েকমাস পূর্বে সংষ্কার করা হলেও তারপরও কিভাবে ব্রিজে এতবড় ফাটল? তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয়রা।

এই মুহূর্তে