Homeস্বাস্থ্যলাইফ স্টাইলEdible Saree: পরাও যাবে, ইচ্ছো হলে খেয়েও ফেলা যাবে, অভিনব শাড়ি দেখে...

Edible Saree: পরাও যাবে, ইচ্ছো হলে খেয়েও ফেলা যাবে, অভিনব শাড়ি দেখে চোখ কপালে উঠেছে গোটা বিশ্বের

Outlinebangla Digital Desk: হাতে গোনা কয়েকটা দিন আর তারপরেই শুরু হয়ে যাবে বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপুজো। আর দুর্গাপুজো মানেই শাড়ি। বাঙালি নারীদের এক ঐতিহ্যবাহী পোশাক। অষ্টমীর অঞ্জলি থেকে শুরু করে বিজয়ার সিঁদুর খেলা নানান রঙের শাড়ি না পড়লে যেন উৎসবের আনন্দটাই মাটি হয়ে যায়।

বর্তমানে আমরা অনেকেই স্টাইলিশ লুক পেতে নানা ধরনের শাড়ির পড়ে থাকি। সম্প্রতি এক অভিনব শাড়ি তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন কেরলের শিল্পী আনা এলিজাবেথ জর্জ। এই নতুন শাড়ির রয়েছে বিশেষ গুন। ধরুন আপনি শাড়ি পড়ে খুব সুন্দর সেজে বাইরে বেড়িয়েছেন। হঠাৎ খুব পেলো আপনার কিন্তু সামনে কিছু পাচ্ছেন না। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে আপনি আপনার শাড়ির আঁচল খুলে খেতে আরম্ভ করলেন। অবাক হচ্ছেন তাই না। বিশ্বাস করুণ, এটা কোনো গল্প নয়, সম্পূর্ণ বাস্তব।যে শাড়ি পড়াও যায়, আবার ইচ্ছো হলে খেয়েও ফেলা যায়।

এই অভিনব শাড়িটি তৈরি হয়েছে স্টার্চ ওয়েফার দিয়ে। চকলেট বা আইসক্রিমে যে ওয়েফার ব্যবহার হয়। ওই ওয়েফার কাগজে জোরা লাগিয়ে শাড়িটি তৈরি হয়েছে। এই শাড়িটি খুব মজবুত। সহজে নষ্ট করতে পারবেন না। ওজন প্রায় দু’কেজির কাছাকাছি। এই শাড়িটি তৈরি করতে মোট খরচ পড়েছে ৩০ হাজার টাকা। কেরলের শিল্পী আনা এলিজাবেথ জর্জ জানান, সে ছোটবেলায় এক শিল্পীকে রুমাল বানাতে দেখেছিলেন, যেটি ব্যবহারের সাথে সাথে খাওয়া সম্ভব। তারপর থেকেই এই ধারনা মাথায় আসে। ওনাম উৎসব উপলক্ষে এই শাড়ি তৈরি করেছেন আনা এলিজাবেথ।

এই মুহূর্তে