অন্য দেশের ভ্যাকসিন নয়-অলিম্পিকে প্রতিযোগীদের দেওয়া হবে চিনের করোনা ভ্যাকসিন

IOC reveals China has offered vaccines to Tokyo and Beijing Olympic
(Photo: Google)

আউটলাইন বাংলা ডিজিটাল ডেস্কঃ আর মাত্র কয়েক মাস বাকি। তারপরেই শুরু হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অলিম্পিক। জাপানের টোকিওতে অলিম্পিকের আসর বসতে চলেছে। তবে অলিম্পিক শুরুর আগে সমস্ত প্রতিযোগীদের দেওয়া হবে চিনের করোনা ভ্যাকসিন। এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন IOC বা আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির পক্ষ থেকে। সেই জন্যই তারা চিনের অলিম্পিক কমিটির সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে।

বৃহস্পতিবার চিন অলিম্পিক কমিটির কর্তাদের সঙ্গে অনলাইনে বৈঠক করেন আইওসি প্রধান টমাস বাখ। সেখানে চিনের করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বাখ চিনের অলিম্পিক কমিটির প্রশংসা করে বলেন, “চিন অলিম্পিক কমিটির কর্তারা আমাদের আশ্বস্ত করেছে টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিতে চলা প্রতিটা অ্যাথলিটই করোনা ভ্যাকসিন পাবে। আইওসিকে এমন সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় ধন্যবাদ দিতে চাই চিন অলিম্পিক কমিটিকে।” তবে শুধু টোকিও অলিম্পিক নয়, ২০২২ সালে বেজিংয়ে আয়োজিত শীতকালীন গেমসেও প্রতিযোগীদের চিনের করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

করোনার পরিস্থিতির জন্যই অলিম্পিক গত বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়। এবছর এই প্রতিযোগিতা শুরু হবে ২৩ শে জুলাই থেকে জাপানের টোকিওতে। বাখ বলেন, শুধু অলিম্পিক নয়। তার সাথে প্যারিলিম্পিকের প্রতিটা অ্যাথলিটকেও করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।