Homeবিবিধঅ্যালোপ্যাথি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য রামদেবের বিরুদ্ধে ১০০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা...

অ্যালোপ্যাথি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য রামদেবের বিরুদ্ধে ১০০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা দায়ের করল IMA

Outlinebangla Desk: অ্যালোপ্যাথি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য এক হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা দায়ের করল ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (IMA) এর উত্তরাখন্ড শাখা। বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য এর থেকে ক্ষমা চাইলেও রেহাই পেলেন না বাবা রামদেব। IMA তরফে পাঠানো নোটিশে বলা হয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে যোগগুরুকে অ্যালোপ্যাথি ওষুধ নিয়ে নিজের বিবৃতি বদলাতে হবে এবং লিখিতভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। এমনকি সোমবার IMA এর পক্ষ থেকে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তিরথ সিংহ রাওয়াতকেও রামদেবের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জি জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি একটি ভিডিওতে রামদেবকে বলতে শোনা গেছে, “অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা আসলে বোকামি। চিকিৎসার নামে তামাশা চলে। লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছে শুধুমাত্র অ্যালোপ্যাথি ওষুধ খেয়ে। করোনার সাথে লড়াই করতে ব্যর্থ অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা।” এই ভিডিওটি ভাইরাল হতেই সমালোচনা শুরু হয়ে যায়। রামদেবের শাস্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনকে চিঠি দেন IMA এর সদস্যরা। এরপরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী রামদেবের উদ্দেশ্যে চিঠিতে লেখেন, “আপনার মন্তব্যে দেশবাসী আহত হয়েছেন। ফোনে এ কথা আপনাকে জানিয়েছি। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা দেশবাসীর কাছে ঈশ্বরের মতো। তাঁরা প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছেন”।

যদিও এই ঘটনার পর রামদেব বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন। তিনি বলেন,”আমরা আধুনিক চিকিৎসা ও অ্যালোপ্যাথিকে কটাক্ষ করিনি। ফোনে সোশ্যাল মিডিয়ায় আসা একটি বার্তা পড়ে শোনাচ্ছিলাম, আমাদের তাতে সমর্থন ছিল না। ” এর সাথে অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে যোগগুরু ২৫ টি প্রশ্ন করেন। প্রশ্নগুলির মধ্যে ছিল,অ্যালোপ্যাথি যদি এতই ভালো হবে তবে চিকিৎসকরা অসুস্থ হন কেন?অ্যালোপ্যাথি ২০০ বছরেও বহু রোগের ওষুধ তৈরি করতে পারে নি কেন? আর এইসব প্রশ্নের জন্যই তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে IMA উত্তরাখণ্ড।

এই মুহূর্তে