জানলে রোজ খাবেন খেজুরের রস,দেখুন উপকারিতাগুলি

If you know you would drink dates juice every day, see the benefits
Image Source: Google

আউটলাইন বাংলা ডেস্ক: শীতের সকালে গ্রামাঞ্চলে মিষ্টি খেজুরের রস খুবই জনপ্রিয় একটি পানীয়। শহরাঞ্চলেও এটি বর্তমানে খুব দুর্লভ বস্তু নয়। এই শীতে গ্রামে গ্রামে খেজুরের রস জ্বাল দিয়ে নলেন, ঝোলা ও দানা গুড় তৈরি হয়। তারপর সেই গুর থেকে তৈরি হয় বিভিন্ন ধরনের পিঠে।

ব্রিটিশ আমলে খেজুর গুড় থেকে চিনি তৈরি করা হতো। এই চিনি ব্রাউন সুগার নামে পরিচিত ছিল। যা ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হতো। আমরা অনেকেই খেজুরের রস খেয়েছি। কিন্তু আপনি হয়তো খেজুরের রসের এই উপকারিতা গুলির কথা জানেন না।

১। শক্তির যোগান দেয়:
খেজুরের রসে উচ্চ প্রাকৃতিক শর্করা বিদ্যমান। আপনি কাঁচা অথবা কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে খাওয়া যায়। যেহেতু উচ্চ প্রাকৃতিক গ্লুকোজ বিদ্যমান তাই একে শক্তির পাওয়ার হাউস বা শক্তির ভান্ডার বলা যায়।

২। শরীর জলশূন্যতা মুক্ত রাখে:
শীতের শুস্কতা, রুক্ষতা আপনাকে কি কষ্ট দিচ্ছে? আপনার ত্বক অথাৎ আপনার চেহারায় মলিন ভাব ফুটিয়ে তুলেছে। আর চিন্তা করবেন না। খেজুরের রসে জলীয় অংশ এতো বেশি যে, এই শীতে আপনাকে হাইড্রেট রাখবে খেজুরের রস।

৩। মন মেজাজ ভালো রাখতে সাহায্য করে:
নলেন গুড়ের রসগোল্লা, নলেন গুড়ের সন্দেশ, মোয়া আরও কত কি, রসের গন্ধে খাবারের লোভ বেড়ে যাই আরো কয়েকগুন। খেজুর গাছের বুক চিরে বেরিয়ে আসা এই অমৃত রস শর্করা, প্রোটিন ও মিনারেলস সমৃদ্ধ। যা শীতের এই সময়ে আপনার মন ভালো করে দেবে।

৪। হিমোগ্লোবিন বাড়াতে সাহায্য করে:
শরীরে আইরনের অভাব ঘটলে হিমোগ্লোবিনের ঘাটতি হয় ফলে নানারকম শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি হয়। খেজুরের রস বা গুড়ে প্রচুর পরিমানে আইরন থাকে। এটি হিমোগ্লোবিন তৈরিতে সহায়তা করে।

৫। ব্লাড প্রেসার কমায়:
খেজুরের রসে রয়েছে সোডিয়াম, পটাসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম যেটি আমাদের রক্তচাপ কমায় ও হাড় শক্ত করে