HomeবিবিধGreen house gas methane emission: উষ্ণতার সাথে বাড়ছে উদ্বেগ, মিথেন নিঃসরনে শীর্ষে...

Green house gas methane emission: উষ্ণতার সাথে বাড়ছে উদ্বেগ, মিথেন নিঃসরনে শীর্ষে বাংলাদেশ

আউটলাইন বাংলা ডিজিটাল ডেস্কঃ বিশ্বজুড়ে তাপমাত্রা যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে তার জন্য দায়ী গ্রিনহাউস গ্যাস (Green house gas methane)। মনুষ্যসৃষ্ট নানা কাজের ফলে গ্রিনহাউস গ্যাসের পরিমাণ অনেক বেড়ে গেছে। গ্রিনহাউস গ্যাস গুলির মধ্যে অন্যতম কার্বন-ডাই-অক্সাইড, মিথেন (Methane)। এইগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি ক্ষতিকারক মিথেন। এর ক্ষমতা কার্বন-ডাই-অক্সাইডের (Green house gas methane)থেকে ৮০ শতাংশ বেশি। সেই মিথেন (Methane) উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশ (Bangladesh) শীর্ষস্থানে রয়েছে।

বাংলাদেশে (Bangladesh) কী কারণে মিথেনের (Methane) নিঃসরণ বাড়ছে তা নিয়ে এখনও গবেষণা চলছে। তবে বাংলাদেশের পরিবেশ মন্ত্রী শাহাবুদ্দিন বলেন, ‘সমস্যা সম্পর্কে আমরা অবগত। মিথেনের (Methane) সিংহভাগই নিঃসৃত হয় ধানক্ষেত থেকে। চাষের জমি বন্যায় প্লাবিত হলে ফসল পচে প্রচুর মিথেন নির্গত হয়। এছাড়াও জীবাশ্ম-জ্বালানি অন্যতম কারণ। আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করছি।’

বিজ্ঞানীদের মতে, বাংলাদেশে (Bangladesh) এই বাড়তে থাকা মিথের নিঃসরণ উদ্বেগ বাড়িয়েছে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে কম উচ্চতা ও অধিক জনঘনত্ব পূর্ণ অঞ্চলে আরও ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলছে। মিথেন বিশ্বউষ্ণায়নের প্রধান কারণ। যার ফলে বরফ গলে সমুদ্রের জলস্তর বাড়তে পারে। তাই মিথেন নিঃসরণের উৎসগুলিকে চিহ্নিত করতে হবে। না হলে আগামী দিনে আরও বিপদ বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রতিবছর বায়ুদূষণের কারণে ৭০ লক্ষ মানুষ মারা যায়। দূষণের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে এবং রাষ্ট্রসঙ্ঘের ১৪৯ টি সদস্য দেশকে সেই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, বায়ুদূষণের অন্যতম কারণ কার্বন নিঃসরণ কমানোর বিষয়ে।

এছাড়া নির্দেশিকায় পার্টিকুলেট ম্যাটার, নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইডের সর্বোচ্চ মাত্রা কত থাকবে তাও স্পষ্ট করে বলে দেওয়া হয়েছে। নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড, সালফার ডাই অক্সাইড এবং কার্বন মনোক্সাইড সহ ছয় ধরণের দূষণ থেকে বায়ুর গুণগত মান উন্নত করার সুপারিশ করা হয়েছে।

Read more- Air Pollution: বিশ্বে বাড়ছে বায়ুদূষণের প্রভাব, কড়া নির্দেশিকা দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

এই মুহূর্তে