Homeস্বাস্থ্য সংক্রান্তSalt: সুস্থ থাকতে রোজ কতটুকু লবণ খাবেন

Salt: সুস্থ থাকতে রোজ কতটুকু লবণ খাবেন

Outlinebangla Digital Desk: আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে লবণের (Salt) ব্যবহার। লবণ (Salt) ছাড়া সমস্ত খাবারই স্বাদহীন। কখনো কখনো এক চিমটে লবণের (Salt) অভাবে রান্না করা খাবারও বিস্বাদ হয়ে যায়। তবে লবণ যে শুধু খাবারে স্বাদ বাড়ায় তা না, আমাদের শরীরে আয়োডিনেরও জোগান দেয়। এছাড়াও রয়েছে লবণের (Salt) একাধিক গুন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) জানিয়েছে, সারাদিনে ৫ গ্রামের বেশি নুন খাওয়া একদম উচিত না। স্বাস্থ্য গবেষক জানিয়েছে একজন সুস্থ্য-স্বাভাবিক মানুষ প্রতিদিন যদি ৫ গ্রামের বেশি লবণ খায় তাহলে উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) মতে, সুস্থ থাকার জন্য সোডিয়াম ও পটাশিয়াম খুব জরুরি। সুতরাং এক জন মানুষ যদি প্রতিদিন ৫ গ্রাম করে লবণ (Salt) খান তাহলে তাঁর শরীরে এই দুই উপাদান সম্পূর্ণ সঠিক পরিমানে থাকবে। যদি কোনো মানুষ সারাদিনে ৫ গ্রামের বেশি লবণ খায়, তাঁর শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বেড়ে যাবে, হাড় দুর্বল হয়ে পড়বে, রক্তসঞ্চালন প্রক্রিয়া ও স্নায়ুতন্ত্রের উপরেও খারাপ প্রভাব ফেলবে। এছাড়াও উচ্চ রক্ত চাপের সমস্যা দেখা দেবে।

স্বাস্থ্য গবেষকরা বলছে, খাবারে বাড়তি লবণ নেওয়া মানে অসুখকে আমন্ত্রন জানানো। প্রতি বছর ত্রিশ লাখেরও বেশি মানুষ প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পরিমান লবণ (Salt) খেয়ে বিভিন্ন রোগের সম্মুখীন হয়। এতে মৃত্যু ঝুঁকি থেকে যায়। বর্তমান সময়ে প্রত্যেক মানুষের নোনতা স্ন্যাক্স, প্রসেস্‌ড ফুড খাওয়ার প্রবনতা বেড়েছে। আর এই ধরনের খাবারে লবণের (Salt) পরিমাপ ভিন্ন রকম ভাবে যোগ করা হয়। প্রত্যেক মানুষের সু-স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য বিভিন্ন খাবারে যাতে সমপরিমাণ লবণ ব্যবহার করা হয় তারই এক নির্দেশিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রসেস্‌ড ফুড, স্ন্যাক্স জাতীয় খাবার গুলিতে কতটা পরিমানে সোডিয়াম থাকা বাঞ্ছনীয়, তারই একটি সঠিক মাপকাঠি তৈরি করেছে হু (WHO)। বলা হয়েছে, আলুর চিপ্‌স জাতীয় খাবারে প্রতি ১০০ গ্রামে শুধু ৫০০ মিলিগ্রাম সোডিয়াম থাকা আবশ্যক। পেস্ট্রির ক্ষেত্রে ১২০ মিলিগ্রাম এবং প্রসেস্‌ড মিটের ক্ষেত্রে ৩৪০ মিলিগ্রাম সোডিয়াম থাকা আবশ্যক।

বিকল্প পন্থা:

বেশি মাত্রায় লবণ (Salt) খাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হলে অবশ্যই খাবার টেবিলে লবণের কৌটা রাখা যাবে না। যে সমস্ত ব্যাক্তি লবণ ছাড়া কোনো কিছু খেতে পারেন না সেক্ষেত্রে ‘সৈন্ধব’ লবণ খেতে পারেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, ‘সৈন্ধব’ লবণ প্রক্রিয়াজাত নয় তাই এই লবণ খাওয়া নিরাপদ।

আরও পড়ুনঃ Treadmill workout: ব্যায়াম করছেন ট্রেডমিলে? মাথায় রাখুন বিষয়গুলো

এই মুহূর্তে