Monday, March 1, 2021
Home স্বাস্থ্য শরীর স্বাস্থ্য পাইলসের সমস্যায় নাজেহাল? ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন এই সমস্যা

পাইলসের সমস্যায় নাজেহাল? ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন এই সমস্যা

আউটলাইন বাংলা হেল্‌থ ডেস্কঃ পাইলস এমন একটি রোগ যার কাছ থেকে মানুষ পিছু ছাড়াতে নাজেহাল হয়ে পরে। অনেকে অপারেশন করেও এই রোগ দূর করতে পারেন না। কিন্তু ঘরোয়া উপায় একাধিক বিশেষজ্ঞের পরামর্শে আপনি নিমিষেই দূর করতে পারবেন পাইলসের সমস্যা।

এক নজরে জেনে নিন ঘরোয়া উপায়ে কিভাবে পাইলস নিরাময় করবেন-

 

অলিভ অয়েল –

প্রতিদিন এক চা চামচ অলিভ অয়েল খান। এটি দেহের প্রদাহ হ্রাস করে এবং মোনোস্যাচুরেটেড চর্বি উন্নত করে থাকে। এছাড়াকিছু বরই পাতা গুঁড়ো করে অলিভ অয়েলের সাথে মিশিয়ে নিন। এটি আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করে লাগান। এটি ব্যথা কমাতে সাহায্য করবে।

 

lemon and zingerআদা এবং লেবুর রস –

ডিহাইড্রেশন হেমোরয়েডের অন্যতম আরেকটি কারণ। আদাকুচি, লেবু এবং মধু মিশ্রিত জুস দিনে দুইবার পান করুন। এটি নিয়মিত পান করুন। এটি শরীর হাইড্রেটেড করে পাইলস দূর করে দেয়। এছাড়া দিনে ৮ থেকে ১০ গ্লাস জল পান করুন।

 

বরফ –

ঘরোয়া উপায়ে পাইলস নিরাময় করার অন্যতম উপায় হল বরফ। এটি রক্তনালী রক্ত চলাচল সচল রাখে এবং ব্যথা দূর করে দেয়। একটি কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ পেঁচিয়ে ব্যথার স্থানে ১০ মিনিট রাখুন। এটি দিনে কয়েকবার করুন।

আরও দেখুন- যে খাবারই খাচ্ছেন বদহজম হয়ে যাচ্ছে? হজমের সমস্যা মেটাতে রইলো ঘরোয়া টোটকা

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার –

একটি তুলোর বলে অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার লাগিয়ে ব্যথার স্থানে লাগান। শুরুতে এটি জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করবে, কিছুক্ষণ পরএই জ্বালাপোড়া কমে যাবে। এটি দিনে কয়েকবার করুন। অভ্যন্তরীণ হেমোরয়েডের জন্য এক চা চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এক গ্লাস জলে মিশিয়ে নিন। এটি দিনে দুইবার পান করুন। এরসাথে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

 

aloveras outlineঅ্যালোভেরা –

বাহ্যিক হেমোরয়েডের জন্য অ্যালোভেরা জেল আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করে লাগান। এটি জ্বালাপোড়া দূর করে ব্যথা কমিয়ে দেবে। আভ্যন্তরীণ হেমোরয়েডের ক্ষেত্রে অ্যালোভেরা পাতার কাঁটার অংশ কেটে জেল অংশটুকু একটি প্ল্যাস্টিকের প্যাকেটে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। এবার এই ঠান্ডা অ্যালোভেরা জেলের টুকরো ক্ষত স্থানে লাগিয়ে রাখুন। এটি জ্বালাপোড়া, ব্যথা, চুলকানি দূর করে দেবে।

কিন্তু অবশ্যই অতিরিক্ত সমস্যায় চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন। সুস্থ থাকুন। ভালো থাকুন।

Most Popular