Homeবিবিধকরোনা রোগীদের বিনামূল্যে রামদেবের 'করোনিল' দেওয়ায় সিদ্ধান্ত হরিয়ানা বিজেপি সরকারের

করোনা রোগীদের বিনামূল্যে রামদেবের ‘করোনিল’ দেওয়ায় সিদ্ধান্ত হরিয়ানা বিজেপি সরকারের

Outlinebangla Desk: করোনা চিকিৎসায় রামদেবের তৈরি ওষুধ করোনিল বিনামূল্যে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল হরিয়ানা সরকার। সোমবার হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনিল ভিজ টুইটারে টুইট করে সেই বার্তা জানান। এরপরেই সোশ্যাল মিডিয়া এই বিষয় নিয়ে বিতর্কের ঝড় ওঠে।

সোমবার হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান,” এক লক্ষ পতঞ্জলি করোনিল কিট হরিয়ানার করোনা রোগীদের বিনামূল্যে দেওয়া হবে। এর অর্ধেক খরচ পতঞ্জলি এবং অর্ধেক খরচ হরিয়ানা সরকারের করোনা রিলিফ ফান্ড বহন করবে।” এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে করোনিল লঞ্চ করেছিলেন রামদেব। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের উপস্থিতিতেই রামদেব করোনিলকে করোনার প্রতিষেধক হিসেবে দাবি করলেও এর কোন বৈজ্ঞানিক তথ্য নেই। এমনকি বিজ্ঞানসম্মত ট্রায়ালও হয়নি বলে খবর।

করোনা চিকিৎসায় আদৌ এই ওষুধ কাজে লাগে কিনা তার কোন প্রমাণ মেলেনি। এরপরেই ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন এর তীব্র সমালোচনা করেছিল। অন্যদিকে রামদেবের কথায়, “উপস্থাপিত তথ্যের ভিত্তিতে, আয়ুশ মন্ত্রক করোনিল ট্যাবলেটকে কোভিড-১৯ এই সঙ্গে লড়াই করার ওষুধ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।” কিন্তু করোনার ওষুধ বিক্রির মিথ্যা প্রচারের জন্য রামদেবের বিরুদ্ধে মামলাও হয়। পরে করোনার ওষুধ নয়। বরং করোনিলকে কেন্দ্র ছাড়পত্র দেয় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ওষুধ হিসাবে। অন্যদিকে হরিয়ানা সরকারের মতে, করোনা রোগীদের ইমিউনিটি বাড়ানোর জন্যই এই ওষুধ দেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, পতঞ্জলির কর্ণধার বাবা রামদেব এর আগে অ্যালোপ্যাথি নিয়ে নানা বিতর্কিত মন্তব্য করার ফলে রবিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী কড়া চিঠি দেন যোগগুরুকে। এরপরেই মন্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা চেয়ে নেন রামদেব।

এই মুহূর্তে