Homeরাজ্যজামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তার বিজেপির প্রাক্তন ব্লক সভাপতি, বিক্ষোভ কর্মসূচি মাড়গ্রাম থানায়

জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তার বিজেপির প্রাক্তন ব্লক সভাপতি, বিক্ষোভ কর্মসূচি মাড়গ্রাম থানায়

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাড়গ্রাম: বীরভূমের রামপুরহাট ২ নম্বর ব্লকের বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি বিকাশ মাল কে অস্ত্র আইন সহ বেশ কয়েকটি জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এবং তার মুক্তির দাবিতে আজ মাড়গ্রাম থানায় বিক্ষোভ দেখালো বিজেপির কর্মীরা। এদিন দুপুর ১২ টা নাগাদ মাড়গ্রাম কালীতলা থেকে বিক্ষোভ মিছিল করে মাড়গ্রাম থানার সামনে এসে বিক্ষোভ দেখান তারা।

এই বিক্ষোভে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির বীরভূম জেলা সাধারণ সম্পাদক অতনু চ্যাটার্জী, রামপুরহাট  মন্ডল কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশীষ দাস, রামপুরহাট  মন্ডল কমিটির সভাপতি সুজাউদ্দিন আহমেদ, বীরভূম জেলার বিজেপির সহ সভাপতি রূপা মন্ডল, বিজেপির রাজ্য কমিটির কার্যকরী সদস্য ধ্রুব কুমার সাহা সহ বিজেপি অন্যান্য কর্মী সমর্থকেরা।

থানা ঘেরাও করে মাইকে মাড়গ্রাম থানার সামনে ওসির উদ্দ্যেশে বিজেপির রাজ্য কমিটির কার্যকরী সদস্য ধ্রুব কুমার সাহা বলেন ” ভারতীয় জনতা পার্টির আজকের এই আন্দোলন প্রতীকী আন্দোলন করেছি, বিকাশ মালের মুক্তির দাবি তে। যদি মুক্তি না দেওয়া হয় আগামী দিনে হাজারো হাজারো মানুষ আপনার এই থানার গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকবে, না আপনাকে বের হতে দেওয়া হবে না ঢুকতে দেওয়া হবে এই গেট কিন্তু ভারতীয় জনতা পার্টির তত্ত্বাবধানে চলবে” এই বলে হুমকি দিলেন মাড়গ্রাম থানার ওসির উদ্দ্যেশে।

বীরভূম জেলার সাধারণ সম্পাদক অতনু চ্যাটার্জী জানান

“প্রাক্তন ব্লক সভাপতি বিকাশ মাল কে গত পরশু পুলিশ অন্যায় ভাবে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রামে একটা টিউবওয়েল কে কেন্দ্র করে ঝামেলা, যে ঝামেলার সঙ্গে বিকাশ মালের কোন যোগ ছিল না। ঝামেলা মিটে যাওয়ার পর ওই রাস্তা দিয়ে বিকাশ মাল আসছিল শুধুমাত্র বিকাশ মাল বিজেপি করে বলে পুলিশ ওকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে চলে আসে। তুলে নিয়ে চলে আসার পরিপ্রেক্ষিতে আর্মস অ্যাক্ট সহ বিভিন্ন জামিন অযোগ্য ধারায় পুলিশ ওকে মামলা দিয়েছে তারই প্রতিবাদে আজকে আমরা এখানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছি।

আমরা পুলিশ অফিসারদের সঙ্গে কথা বললাম আগামী ১৪ তারিখে কোর্টে উনার জামিনের ডেট আছে , আমরা পুলিশ কে বলেছি ১৪ তারিখে যদি জামিন হয় পুলিশ যদি ওর বিরুদ্ধে যে সমস্ত মিথ্যে মামলার অভিযোগ দিয়েছে সেগুলো যদি প্রত্যাহার করে নিয়ে আগামী ১৪ তারিখে উনার জামিনের ব্যবস্থা করে তাহলে কোন সমস্যা নেই, আর যদি ১৪ তারিখ বিকাশ মালের জামিন না হয় তাহলে ১৪ তারিখের পর থেকে লাগাতার বিক্ষোভ কর্মসূচি থানার সামনে চলবে”।

এই মুহূর্তে